শিরোনাম
রায়গঞ্জে ভোট যুদ্ধে এগিয়ে চেয়ারম্যান প্রার্থী ইমন তালুকদার কাজিপুর গোয়ালবাথান উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষক-কর্মচারী নিয়োগে দুর্নীতি উল্লাপাড়ায় আনারস চাষে সফলতার সম্ভাবনা রায়গঞ্জে এস.কে.বি ভাটা মালিক কর্তৃক ভূমি লিজ দাতাকে প্রাণনাশের হুমকি ধুনটে দুস্থ মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী ও টিউবয়েল বিতরণ কাজিপুরে হেরোইনসহ মাদক সম্রাট ‘বাদশা’ গ্রেফতার সিরাজগঞ্জের বাগবাটিতে হামলার ঘটনায় জড়িত নয়ন কুমার আটক সিরাজগঞ্জে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম এর ১২৫ তম জন্মোৎসব পালন উপলক্ষে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা শেরপুরে ট্রাক ও ট্রলি মুখোমুখি সংঘর্ষ নিহত এক সিরাজগঞ্জে জাহান আরা উচ্চ বিদ্যালয়ে জিপিএ-৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা প্রদান
রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ০৬:৫৯ অপরাহ্ন

সিরাজগঞ্জ চেয়ারম্যান প্রার্থীর পক্ষে ইলেকশন ইঞ্জিনিয়ারিং এর সাথে জড়িত প্রিসাইডিং অফিসারসহ ৬ জনকে জেল হাজতে প্রেরন

রিপোর্টারের নাম / ৭১ Time View
হালনাগাদ : মঙ্গলবার, ৭ মে, ২০২৪

বিশেষ প্রতিবেদক:
সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থীর পক্ষে গোপন বৈঠক করার অভিযোগে গ্রেফতার হওয়া পাঁচ প্রিসাইডিং অফিসারসহ ছয়জনকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

মঙ্গলবার (৭ মে) সন্ধ্যায় সিরাজগঞ্জ অতিরিক্ত জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হলে বিচারক মো. বিল্লাল হোসাইন তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

সিরাজগঞ্জ গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জুলহাজ উদ্দীন জানান, ঘটনার সঙ্গে জড়িত অন্যান্যদের গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান চলছে। তবে এখন পর্যন্ত ঘটনার সঙ্গে জড়িত চেয়ারম্যান প্রার্থীর নাম জানা যায়নি।

তবে দোয়াত কলম প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী রাশেদ ইউসুফ জুয়েলের দাবি করে বলেন, বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান ও আনারস প্রতীকের প্রার্থী মো. রিয়াজ উদ্দিন নির্বাচনকে প্রভাবিত করার জন্য প্রিসাইডিং অফিসারদের নিয়ে গোপন বৈঠক করেছেন। এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশন বরাবর লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।

এসব অভিযোগ অস্বীকার করে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার চেয়ারম্যান প্রার্থী রিয়াজ উদ্দিন বলেন, ওই বৈঠকের সঙ্গে তার কোনো সম্পৃক্ততা নেই। এটা আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের একটা অংশ।

এর আগে, সোমবার (৬ মে) দিনভর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ছয়জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

গ্রেফতাররা হলেন- সদর উপজেলার যমুনা ডিগ্রি কলেজের সহকারী অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম, পৌর এলাকার এসবি রেলওয়ে কলোনি স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ আশরাফুল ইসলাম, সিরাজগঞ্জ পুলিশ লাইন্স স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রভাষক আবু সামা, বাহুকা কলেজের প্রভাষক বাচ্চু কুমার ঘোষ, জনতা ব্যাংক সিরাজগঞ্জ জোনাল অফিসের প্রিন্সিপাল অফিসার ইয়াসিন আরাফাত এবং তাদের সমন্বায়ক শিয়ালকোল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ও সিরাজগঞ্জ জেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি আমিনুর ইসলাম।

সিরাজগঞ্জ জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন অফিসার মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, গোপন বৈঠকের অভিযোগে ছয়জনকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নির্বাচন কমিশনকে অবগত করা হয়েছে। পুলিশ তদন্ত করছে। তদন্ত রিপোর্টের পরেই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানাবে নির্বাচন কমিশন।

তিনি আরও বলেন, এ ঘটনায় আটজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা ২০ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। ইতোমধ্যে ১০ জন প্রিসাইডিং কর্মকর্তাকে বাদ দিয়ে নতুন ১০ জনকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

এর আগে, সোমবার (৬ মে) রাত সাড়ে ৯টার দিকে জেলা প্রশাসকের হলরুমে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে জেলা প্রশাসক মীর মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান বলেন, রোববার (৫ মে) রাত ৮টার দিকে সদর উপজেলার কাদাই এলাকার গার্ডেন প্যালেস রিসোর্টে সদর উপজেলার তালিকাভুক্ত কতিপয় প্রিসাইডিং অফিসার সদর উপজেলার একজন চেয়ারম্যান প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচনে প্রভাব বিস্তারের জন্য গোপন বৈঠক করছেন। এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সেখানে পুলিশ, জেলা প্রশাসন ও নির্বাচন অফিসের সমন্বয়ে যৌথ অভিযান চালানো হয়। তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে কাউকে না পাওয়া গেলেও ঘটনাস্থল থেকে সিসিটিভির ফুটেজ ও ওই প্রতিষ্ঠানের কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসা হয়।

এ সময় পুলিশ সুপার আরিফুর রহমান জানান, এ ঘটনায় সোমবার দিনভর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ৫ জন প্রিসাইডিং অফিসার ও এদের মাস্টার মাইন্ড সহকারী শিক্ষক আমিনুর ইসলামকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে। তবে কোনো প্রার্থীর পক্ষে গোপন বৈঠক করা হচ্ছিল সে বিষয়টি আরও তদন্তের পর নিশ্চিত হওয়া যাবে।

ঝর্ণা আক্তার/ আজকের সিরাজগঞ্জ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর